নাটোরে বিএনপি নেতা কর্মিদের বহনকারী মাইক্রোবাস ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ


নাটোর প্রতিনিধি: নাটোরে বিএনপির রোড মার্চ এ যাওয়ার পথে বিএনপি নেতা কর্মিদের বহনকারী মাইক্রোবাস ও প্রাইভেটকারে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করেছে দুর্বৃত্তরা। এ সময় বিএনপি নেতা কর্মিদের ওপর হামলা ও মারপিট করার অভিযোগ করেছে জেলা বিএনপি। আহতদের বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। রবিবার সকালে সদর উপজেলার ডাল সড়ক, তেবারিয়া ও সৈয়দ মোড় এলাকায় ঘটনাগুলো ঘটে।

বিএনপি নেতা ফরহাদ আলী দেওয়ান শাহীন জানান, বিএনপির রোর্ড মার্চ সফল করার লক্ষ্যে জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে নেতা কর্মিরা গাড়ী নিয়ে বের হয়। এ সময় দিঘাপতিয়া ইউনিয়নের ডাল সড়ক এলাকায় বিএনপি নেতা কর্মিদের বহনকরা একটি হাইয়েস গাড়ী থামিয়ে সরকার দলীয় ক্যাডাররা নেতা কর্মিদের মারধর করে এবং গাড়ীতে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। এছাড়াও সৈয়দ মোড় ও তেবারিয়া এলাকায় তাদের নেতা কর্মিদের আরো দুইটি গাড়ী ভাংচুর ও নেতা কর্মিদের পিটিয়ে জখম করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম রমজানের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, নাটোরে বিএনপি’র কোন রোড মার্চ কর্মসুচি ছিল না। তাই তাদের ওপর আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের হামলা করার কোন প্রশ্নই আসে না। তাছাড়া তারা বলছে তাদের গাড়িতে অগ্নিসংযোগের যে অভিযোগ করেছে।

তাহলে তাদের কেউ কি অগ্নিদগ্ধ হয়েছে? তাদের গাড়িরে গ্যাস বা এলপিজি গ্যাসের আগুন থেকে এ ঘটনা ঘটতে পারে। আওয়ামী লীগের ভাব মূর্তি ক্ষুন্ন করতেই তারা এই মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগ করেছে। তিনি এই বিষয়ে প্রশাসনকে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার আহবান জানান।

ফায়ার সার্ভিসের লিডার রুহুল আজিম জানান,সংবাদ পেয়ে তারা ঘটনাস্থলে পৌছে আগুন নিয়ন্ত্রন করেন তবে এখনো বিপদমুক্ত নয় গাড়ীটি।

এ বিষয়ে নাটোর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাসিম আহমেদ বলেন, গাড়ীতে আগুন ধরেছে খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে ফায়ার সার্ভিসের সহযোগীতায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনেন। তবে গাড়ীতে কিভাবে আগুন ধরেছে বা গাড়ীতে কারা ছিল তা তিনি জানেন না। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।