রাজশাহীতে আম নামানোর তারিখ নির্ধারণ করলেন জেলা প্রশাসন


স্টাফ রিপোর্টার: প্রতিবছরের মত এবারও রাজশাহীতে আম নামানোর তারিখ নির্ধারণ করে দিয়েছে জেলা প্রশাসন। বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সভায় জাতভেদে আম নামানোর সাম্ভাব্য তারিখ ঘোষণা করা হয়।

সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মুহাম্মদ শরিফুল হক জানান, শুক্রবার (১৩ মে) থেকে রাজশাহীতে সব ধরনের গুটি জাতের আম যাবে। এ ছাড়া আগামী ২০ মে থেকে গোপালভোগ, ২৫ মে থেকে রানীপছন্দ ও লক্ষণভোগ বা লখনা; ২৮ মে থেকে হিমসাগর বা খিরসাপাত, ৬ জুন থেকে ল্যাংড়া, ১৫ জুন থেকে আম্রপালি ও ফজলি; ১০ জুলাই থেকে আশ্বিনা ও বারী-৪; ১৫ জুলাই থেকে গৌড়মতি এবং ২০ আগস্ট থেকে ইলামতি আম নামানা যাবে।

তিনি জানান, বাজারে যেন অপরিপক্ব আম না যায় তার জন্য ফল গবেষক, কৃষি বিভাগের কর্মকর্তা ও চাষিদের সঙ্গে আলোচনা করেই আম নামানোর সাম্ভাব্য তারিখ ঠিক করা হয়েছে। নির্ধারিত সময়ের আগে অপরিপক্ব আম নামালে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সভায় রাজশাহী জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোজদার হোসেন জানান, কিছু এলাকায় চলতি মৌসুমে গাছে আম কম থাকলেও এবারও লক্ষ্যমাত্রা অর্জন হবে বলে তিনি আশা করছেন। কারণ, গাছে আম কম থাকলে তা বড় হয়। গাছে আম কম থাকলে ঝরে পড়েও কম। সভায় কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা ছাড়াও ফল গবেষক, আম চাষি, ব্যবসায়ী ও কুরিয়ার সার্ভিসের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, রাজশাহী মহানগর এবং ৯ উপজেলায় এ বছর ১৮ হাজার ৫১৫ হেক্টর জমিতে আমবাগান আছে। আম উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ২ লাখ ১৪ হাজার ৬৭৬ মেট্রিক টন। হেক্টরপ্রতি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ১১ দশমিক ৫৯ মেট্রিক টন।