শার্শায়  সন্ত্রাসী হামলায় ৪ জন ছাত্র আহত


নিজস্ব প্রতিবেদক:  যশোরের শার্শার উত্তর বারোপোতা গ্রামের সন্ত্রাসী রাজু বাহিনীর হামলায় ৪ জন কলেজ ছাত্র মারাত্মক ভাবে আহত হয়েছে এর মধ্য একজনের অবস্থা আশংকাজনক রয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বেনাপোল পোর্ট থানার বারপোতা বাজারে।
জানাযায়, মঙ্গলবার দিবাগত রাতে বেনাপোল পোর্ট থানাধীন সিকড়ি গ্রামে পীরবাড়ি ইছালে ছাওয়াব মাহফিল শুনতে যায় শার্শা উপজেলার আমলাই ও গোগা গ্রামের ৩/৪ জন ছাত্র।মাহফিল থেকে ইজিবাইকে ফেরার পথে রারোপোতা বাজারে পৌছালে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা উত্তর বারোপোতা গ্রামের আঃ ছাত্তারের ছেলে বারোপোতা এলাকার চিহ্নিত কিশোর সন্ত্রাসী রাজু, ও তার সঙ্গী মহসীন,হৃদয়,আকিব তাদের গতিরোধ করে ছিনতাইয়ের উদ্দেশ্য দেশীয় অস্ত রড,ছুরি,কাটারি দিয়ে পিটিয়ে জখম করে কয়েকটি মোবাইল ফোন ও তাদের পকেটে থাকা টাকা ছিনিয়ে নেয়।
ছিনতাইকালে ধস্তাধস্তি করার সময় তানভীর নামে একজন ছাত্রের মাথায় সন্ত্রাসী রাজু ইট দিয়ে আঘাত করে মারাত্মক ভাবে আহত করে পালিয়ে যায়।এতে করে প্রচুর রক্তক্ষরনের কারনে সে অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে বাগআঁচড়া বাজারে একটি হাসপাতালে ভর্তি করে।
আহত তানভীরের পিতা শাহীন জানান,আমার ছেলেকে যে ভাবে পিটিয়েছে তার মাথা ফেটে গেছে এবং চোখ ফুলে গেছে। কান্নাজড়িত কন্ঠে আরো বলেন আমার ছোট ছেলেটার চোখ হয়তো ভালো হবে না।আমি এ ব্যাপারে বেনাপোল পোর্ট থানায় একটি হত্যাচেষ্টার অভিযোগ করেছি।
এ ব্যাপারে হামলাকারী রাজু জানান,ফাহফিলে কথাকাটির জেরে তারা আমাদের উপর হামলা করে আমাদেরকে মারধর করে।তাই আমরা ওরা ফেরার সময় বারোপোতা বাজারে ওদের পিটিয়েছি।তবে কোনো ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেনি বলে তিনি দাবি করেন।
বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামুন খান জানান,এ ব্যাপারে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত চলছে বলে তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *