ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ইব্রাহিম রায়িসি প্রাথমিক ফলাফলে জয়ী


ইরানের ১৩তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রার্থী মোহসেন রেজায়ি ও আবদুননাসের হেম্মাতি পৃথক বার্তায় বিজয়ী প্রার্থী হিসেবে সাইয়্যেদ ইব্রাহিম রায়িসিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।  ইরানের প্রেসটিভি এ খবর দিয়েছে।

নির্বাচনের আরেক প্রার্থী আমির হোসেন কাজিজাদেহ হাশেমিও নির্বাচনে জয়ী হওয়ায় রায়িসিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন বলে জানা গেছে।

 

গতকাল ১৮ জুনে অনুষ্ঠিত এ নির্বাচনে পরস্পরের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন রায়িসি, রেজায়ি, হেম্মাতি ও কাজিজাদেহ হাশেমি।

 

প্রেসিডেন্ট রুহানিও টেলিভিশনে দেওয়া বক্তব্যে নির্বাচিত প্রেসিডেন্টকে অভিনন্দন জানিয়েছে বলে খবর এসেছে। তবে তিনি নির্বাচিত প্রেসিডেন্টের নাম উল্লেখ করেননি।

 

সংস্কারপন্থী প্রার্থী হেম্মাতি ইনস্টাগ্রামে দেয়া এক বার্তায় রায়িসিকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেছেন, তিনি আশা করেন যে রায়িসি মহান ইরানি জাতির জীবনযাত্রা উন্নত করবেন এবং তাদের জন্য সমৃদ্ধি বয়ে আনবেন। রক্ষণশীল প্রার্থী কাজিজাদেহ হাশেমিও বলেছেন, আমি জনগণের ভোটকে সমর্থন জানিয়ে হজরত আয়াতুল্লাহ সাইয়্যেদ ইব্রাহিম রায়িসিকে জনগণের নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট হিসেবে অভিনন্দন জানাচ্ছি।

 

নির্বাচনে জনগণের অংশগ্রহণের জন্য মোহসেন রেজায়ি ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়িকেও অভিনন্দন জানিয়েছেন।

ইরানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এবারের নির্বাচনে দুই কোটি ৮৬ লাখ ভোটার ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। ৯০ শতাংশ ভোট গণনার পর দেখা গেছে, ইব্রাহিম রায়িসি পেয়েছেন এক কোটি ৭৮ লাখ ভোট (৬২ দশমিক ২৩ শতাংশ), মোহসেন রেজায়ী ৩৩ লাখ (১১ দশমিক ৫৩ শতাংশ), আব্দুন নাসের হেম্মাতি ২৪ লাখ (৮ দশমিক ৩৯ শতাংশ) ও আমির হোসেইন কাজিজাদেহ পেয়েছেন প্রায় দশ লাখ ভোট (৩ দশমিক ৪৯ শতাংশ)।

 

আয়াতুল্লাহ সাইয়্যেদ ইব্রাহিম রায়িসি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও গতকালের এই নির্বাচনে তার প্রতি রক্ষণশীল শিবিরের ব্যাপক সমর্থন দেখা গেছে।

 


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *