অর্থ পাচারকারীদের বিষয়ে তথ্য থাকলে আমাকে দেন : সংসদে অর্থমন্ত্রী


বিদেশে অর্থ পাচারকারীদের বিষয়ে কোনো তথ্য থাকলে তা সরকারের হাতে জমা দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশনে আজ সোমবার বিরোধী দলের সদস্যদের উদ্দেশ করে অর্থমন্ত্রী বলেন, কারা টাকা নিয়ে যায়, লিস্ট আমার কাছে নেই। বাংলাদেশ থেকে অর্থ পাচারে কারা জড়িত, তাদের বিষয়ে আমাদের কাছে কোনো তথ্য নেই। আপনাদের কাছে থাকলে আমাদের দেন।

আজ সম্পূরক বাজেটের ওপর আলোচনাকালে বিরোধীদলের সদস্যদের উত্থাপিত নানা অভিযোগের জবাবে এ কথা বলেন অর্থমন্ত্রী।

 

বিরোধী দলের সংসদ সদস্যদের উদ্দেশে আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, অর্থ পাচার ঠেকাতে সরকার সক্রিয় রয়েছে। তবে অর্থ পাচারকারীদের কারো নাম জানা থাকলে আমাদের দেন। তাদের আইনের আওতায় আনতে আমাদের জন্য সহজ হবে।

 

অর্থমন্ত্রী বলেন, দেশের মানুষের কষ্টে অর্জিত টাকা বিদেশে চলে যাবে, আপনাদের যেমন লাগে, আমারও লাগে। আমরা অনিয়ম, বিশৃঙ্খলার বিরুদ্ধে। এগুলো বন্ধ করতে হবে।

 

অর্থমন্ত্রীর বক্তব্যের আগে বিএনপির সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা টাকা পাচারের বিষয়ে সংসদে বলেন, বাজেটের এক লাখ কোটি টাকার ওপরে বিদেশে চলে যাচ্ছে। এসব টাকা ওভার আর আন্ডার ইনভয়েসিংয়ের মাধ্যমে যাচ্ছে। এর বাইরে হুন্ডির পরিমাণ ধরলে আল্লাহ মাবুদ জানেন কত টাকা বিদেশে যাচ্ছে।

 

জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ অভিযোগ করে বলেন, এক ব্যাংকের পরিচালক আরেক ব্যাংকের টাকা নিচ্ছেন। টাকা নিয়ে হুন্ডির মাধ্যমে বিদেশ পাঠাচ্ছেন। দুদকের একটি করে অফিস কানাডায়, মালয়েশিয়ায়, অস্ট্রেলিয়ায় করুন। তাহলে দেখা যাবে কে কত টাকা নিয়েছে।

 

অর্থমন্ত্রীর কাছে প্রশ্ন রেখে কাজী ফিরোজ রশীদ বলেন, ‘পিকে হালদার এত টাকা নিল। নয় মিনিটের জন্য পিকে হালদারকে ধরতে পারেনি। তাহলে নয় ঘণ্টা আগে ধরতে পারলেন না কেন?’

 


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *